২৩৯ বিজ্ঞানীর দাবি

করোনাভাইরাস বায়ুবাহিত

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ৬ জুলাই ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৩:২২

প্রায় আড়াইশ বিজ্ঞানী বলেছেন করোনাভাইরাস বায়ুবাহিত। এ বিষয়ে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সুপারিশ পুনর্বিবেচনার আহ্বান জানিয়েছেন তারা। ৩২ টি দেশের ২৩৯ জন বিজ্ঞানী এমন দাবি করেছেন। এ বিষয়ে তাদের কাছে তথ্যপ্রমাণ রয়েছে বলে তাদের দাবি। আগামী সপ্তাহে তাদের গবেষণা একটি বিজ্ঞান বিষয়ক জার্নালে প্রকাশ হওয়ার কথা রয়েছে। নিউ ইয়র্ক টাইমসকে উদ্ধৃত করে এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স। ওই বিজ্ঞানীরা বলেছেন, বাতাসের ক্ষুদ্র কণার সঙ্গে মিশে থাকে নোভেল করোনা ভাইরাস, যা মানুষকে আক্রান্ত করতে পারে। এ বিষয়ে তাদের কাছে প্রমাণ আছে।
ওদিকে শুরুতেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়ে দিয়েছে, করোনা ভাইরাস মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়। আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি ও কথাবার্তার সময় তার নাক ও মুখ থেকে ছোট্ট কণার আকারে করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঘটে।
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ওই ২৩৯ জন বিজ্ঞানী একটি খোলা চিঠি লিখেছেন। তাতে তারা তাদের গবেষণার কথা জানিয়েছেন। তবে এ বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য করেনি বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বিজ্ঞানীরা বলছেন, হাঁচি দেয়ার পরে সেখানকার বাতাসের কণাকে যদি জুম করা হয়, অথবা কক্ষে থাকা বায়ুর কণাকে জুম করা হয় তাহলে দেখা যায় করোনা ভাইরাস বায়ুবাহিত। যখন কোনো মানুষ সেখানে শ্বাসপ্রশ্বাস নেন তখন তিনি সংক্রমিত হতে পারেন।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Kazi

২০২০-০৭-০৫ ২০:১৬:২০

Who said it is not spreading through air. From infected persons air is carrying to UNINFECTED people when he exhales and inhales by UNINFECTED. So mask is necessary to filter the air when we inhale. 239 scientists are trying to get credit for nothing which they are claiming an illiterate person knows it.

Shafiur Rahman

২০২০-০৭-০৫ ২০:১০:২০

We are confused.Who is correct?

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

বিউবোনিক প্লেগ

চীনে নতুন মৃত্যু আতঙ্ক

১১ আগস্ট ২০২০

নির্বাচন নিয়ে বিক্ষোভ

বেলারুশে নিহত ১, ক্ষমতা হস্তান্তরের আহ্বান

১১ আগস্ট ২০২০

গ্লোবাল টাইমসে চীনা রাষ্ট্রদূতের নিবন্ধ

চীন-বাংলাদেশ নতুন অধ্যায়ের সূচনা

১১ আগস্ট ২০২০



বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত



গ্লোবাল টাইমসে চীনা রাষ্ট্রদূতের নিবন্ধ

চীন-বাংলাদেশ নতুন অধ্যায়ের সূচনা