দেশে থাকা মাকে খুব মিস করছি -শিমলা

মোশাররফ রুমী

বিনোদন ২৫ মে ২০২০, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ৯:৪০

করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর অধিকাংশ দেশের মানুষই এখন ঘরের চার দেয়ালে বন্দি। ঢালিউডের জনপ্রিয় নায়িকা শিমলাও তাই। এই সময়ে তিনি অবস্থান করছেন ভারতের মুম্বইয়ে। লকডাউন শুরুর আগেই সেখানে যান তিনি। বর্তমানে সেখানে তার একাকি দিন কাটছে বলে জানিয়েছেন। এ প্রসঙ্গে মুম্বই থেকে রোববার রাতে  শিমলা মুঠোফোনে মানবজমিনকে বলেন, দুই বছরের বেশি সময় ধরে মুম্বইয়ের মীরা রোডের একটি বাড়িতে থাকছি। দেশে নিয়মিত যাওয়া আসা হয় আমার। এখন মুম্বইয়ে একা সময় কাটছে।
লকডাউনে আটকে আছি। দিন যাচ্ছে কিভাবে? শিমলা বলেন, এবার প্রায় সবক’টি রোজা রাখার চেষ্টা করেছি। তাই প্রায় পুরো মাসটিই কেটেছে ইবাদত বন্দেগিতে। সারা দুনিয়ার বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আপনার উপলব্ধি কি? এ প্রশ্নের জবাবে শিমলা বলেন, করোনা নামের এক অদৃশ্য শক্তির সঙ্গে লড়াই করছি আমরা। তবে এ লড়াই আমাদের অনেক কিছু শিখিয়ে দিচ্ছে। ভুলে যাওয়া ভ্রাতৃত্ববোধ আবার জাগিয়ে তুলছে। ঘরবন্দি থাকার কারণে পরিবারের মধ্যে আলগা হয়ে যাওয়া বন্ধনগুলো আবার একসুতায় গেঁথে দিচ্ছে। কিন্তু সারা দুনিয়ায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে যেভাবে মানুষ মারা যাচ্ছে তা অত্যন্ত বেদনার। তাই আমার অনুরোধ থাকবে করোনার আক্রমণ থেকে মুক্ত খাকতে সব নিয়ম-কানুন যেন সবাই মেনে চলি। ঘরে থাকি। সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখি। আর আল্লাহর কাছে প্রার্থনা করি তিনি যেন এ করোনাভাইরাস থেকে আমাদের শিগগিরই মুক্তি দেন। মুম্বইতে শোবিজ ব্যস্ততা সম্পর্কে জানতে চাইলে শিমলা বলেন, এর আগে এখানে ‘সফর’ নামে একটি সিনেমায় অভিনয় করেছি। লকডাউন শুরুর আগে বলিউডের সুপারহিট নায়ক গোবিন্দর সঙ্গে একটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করার কথা ছিল। লকডাউনের পর সেটি হবে। শিমলার জন্য মুম্বই নতুন জায়গা। আর সেখানে ক্যারিয়ার গড়া বেশ কঠিন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এটা সত্যি যে মুম্বইয়ে ক্যারিয়ার তৈরি করা খুব কষ্টকর। আর এটি বেশ ব্যয়বহুল শহর। মুম্বইয়ে আমি সাদামাটাভাবেই থাকছি। এখানে কষ্ট করছি, যদি সফলতা পাই তখন ভিন্নভাবে চিন্তাভাবনা করবো। তবে আমি হাল ছেড়ে দেয়ার পাত্রী নই। মুম্বইয়ে থাকছি দুই বছর ধরে। এরই মধ্যে একটি ছবি করেছি। সামনেও আরো ছবি করার কথা চলছে। হয়তো লকডাউনের পর আরো ভালো কিছু হবে। সেই অপেক্ষায় আছি। সোমবার(আজ) তো ঈদ। মুম্বইতে একা। চলছে লকডাউন। কোথাও যেতে পারছেন না। কেউ আসতেও পারবে না আপনার বাসায়। ঈদের দিনটি কিভাবে কাটাবেন বলে পরিকল্পনা করেছেন? এ প্রশ্নের জবাবে শিমলা বলেন, গত দু মাসের বেশি সময় ধরে লকডাউনের দিনগুলো যেভাবে কেটেছে ঈদের দিনটিও সেভাবে কাটবে। ঘরে বাজার সদাই করা আছে। কেউ তো আসবে না। তাই অল্প করে পছন্দের খাবারগুলো রান্না করবো। তবে ঠিকভাবে খাওয়া হয়তো হবে না। কারণ দেশে থাকা মাকে খুব মিস করছি। তাকে ছাড়া ঈদ আমার এই প্রথম। তাও আবার বিদেশের মাটিতে একা গৃহবন্দি অবস্থায়। আপনার মা এখন কোথায় আছেন? শিমলা বলেন, ঝিনাইদহের শৈলকূপায় নিজেদের বাড়িতে। আপনি আবার দেশে আসছেন কবে? ঈদের আগেই তো আসার কথা ছিল। কিন্তু তা তো আর হলো না। এখন দেখা যাক, করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলেই দেশে আসবো। প্রসঙ্গত, নব্বইয়ের দশকে ‘ম্যাডাম ফুলি’ সিনেমার নাম ভূমিকায় অভিনয় করে বেশ আলোচনায় এসেছিলেন শিমলা। এ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন তিনি। আর প্রথম সিনেমায় অভিনয় করেই জিতে নেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। এরপর আর পেছন ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দর্শকদের মন জয় করে নেন এই নায়িকা। এদিকে গত বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে চট্টগ্রামে বাংলাদেশ বিমানের ‘ময়ূরপঙ্খী’ নামে একটি উড়োজাহাজ ছিনতাই চেষ্টার ঘটনায় নিহত হন শিমলার প্রাক্তন স্বামী পলাশ আহমেদ। এ বিষয়টি নিয়ে তৈরি হয়েছিল বিতর্ক। সে সময় বেশ আলোচনায় আসেন তিনি। যদিও তখন ভারতে ছিলেন শিমলা। দেশে ফিরলে এই ঘটনা নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে।

আপনার মতামত দিন

বিনোদন অন্যান্য খবর

ফিরেছেন মেহজাবিন

৯ জুলাই ২০২০

বাংলাদেশী নায়িকার অভিযোগে কলকাতায় তোলপাড়

'রাতে শুটিং করতে, হোটেলে দেখা করতে, আপত্তিকর ছবি পাঠাতে বলেন রাজীব'

৮ জুলাই ২০২০



বিনোদন সর্বাধিক পঠিত