আইসিসিতে বিচারপতি খায়রুল হককে মনোনায়ন দিল বাংলাদেশ

স্টাফ রিপোর্টার

অনলাইন ২৪ মে ২০২০, রোববার, ১:১১ | সর্বশেষ আপডেট: ৮:১৪

সাবেক প্রধান বিচারপতি এবং আইন কমিশনের বর্তমান চেয়ারম্যান বিচারপতি এবিএম খায়রুল হককে আন্তর্জাতিক ক্রিমিনাল কোর্ট আইসিসি-র বিচারক হিসেবে মনোনায়ন দিয়েছে বাংলাদেশ। মানবজমিন নির্ভরযোগ্য সূত্রে এ খবর জানতে পেরেছে। 

আইসিসি রোম সংবিধি দ্বারা প্রতিষ্ঠিত। রোম সংবিধিতে স্বাক্ষর এবং অনুসমর্থনকারী জাতিসংঘের সদস্য রাষ্ট্রগুলোর গোপন ব্যালটে ভোটাভুটিতে আগামী ডিসেম্বরে নিউ ইয়র্কে নতুন বিচারকদের নিয়োগ প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হবে।

উল্লেখ্য, আগামী ৯ বছর মেয়াদে নতুন করে ৬ জন বিচারক নিয়োগ করতে যাচ্ছে আইসিসি। বর্তমানে আইসিসিতে ১৮ জন বিচারক রয়েছে। যাদের মধ্যে ৬ জনের মেয়াদ ২০২১ সালে শেষ হবে। এই বিষয়ে নিয়োগের প্রাথমিক প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু হয়েছে।
২০২০ সালের ১৫ মে’র মধ্যে অ্যাসেম্বলি অফ স্টেট পার্টিজ (এএসপি) এর মনোনয়নের সময়সীমা ছিল। এটা শেষ হয়েছে। এই সময়ের মধ্যে ৬টি পদের বিপরীতে বাংলাদেশ থেকে একজনসহ ২২ জন প্রার্থীর নাম জমা পড়েছে।
আগামী ৭ এবং ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে নিউ ইয়র্কে অনুষ্ঠেয় অ্যাসেম্বলি অফ স্টেটসের ১৯ তম অধিবেশনে প্রার্থীদের নিয়োগ প্রক্রিয়া চূড়ান্ত হবে।
আন্তর্জাতিক ক্রিমিনাল কোর্টের কার্যক্রম রোম সংবিধির দ্বারা পরিচালিত।
এই সংবিধির ৬৩ (৩) অনুচ্ছেদ বলেছে, বিচারকের নিয়োগ হতে হবে এমন সব ব্যক্তির মধ্য থেকে যাদের রয়েছে উচ্চ নৈতিক চরিত্র, নিরপেক্ষ, সৎ এবং দৃঢ়চিত্ত। যারা তাদের নিজ দেশে সর্বোচ্চ বিচার বিভাগীয় পদে নিয়োগের যোগ্যতার শর্তাবলী পূরণ করেন।
রোম সংবিধি অনুযায়ী বিচারকরা কেবলই একবারের মেয়াদে নির্বাচিত হতে পারেন। তাদের পুনঃনির্বাচিত হওয়ার কোনো সুযোগ নেই।

উইকিপিডিয়া বলেছে, বিচারপতি এ. বি. এম. খায়রুল হক (জন্ম: ১৮ মে ১৯৪৪) বাংলাদেশের একজন প্রখ্যাত আইনবিদ এবং ১৯-তম প্রধান বিচারপতি।

পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

shame

২০২০-০৫-২৮ ২১:৫৩:৫৯

shame/////shame

Mohammad Tufazzal Ak

২০২০-০৫-২৮ ০৫:৩৪:৫৩

অস্তাগ-ফিরূল্লাহ ।

Mohammad Tufazzal Ak

২০২০-০৫-২৮ ০৫:৩২:৫৮

অস্তাগ ফিরূল্লাহ।

Shahab

২০২০-০৫-২৭ ০৫:০১:৩৯

Shame on.

ঊর্মি

২০২০-০৫-২৬ ২১:০৩:২২

এহেন গুনী ব্যক্তি আইসিসি প্রধান হিসেবে নিয়োগ পেয়ে দেশ এবং দলের নাম উজ্জল করবেন আশা করি

জামাল

২০২০-০৫-২৫ ০৫:৩৪:০৭

এই সব বিচারকদের তলা বলতে নাই।তারা নিজেরা কিছু বলতে পারে না করতে পারে না।শুদু পারে অবিচার করতে।তার কোভিড এর আলামত দেখা দরকার তাহলে হয়ত একটু সোজা হবে

M A RAHIM

২০২০-০৫-২৪ ০৯:২৬:০৬

Go ahead

রাহমান

২০২০-০৫-২৪ ০৮:২৯:৪৬

সেই রাইয়ের তুলনা নাই আজও তাঁর কদর অতুলনীয়

Bibek

২০২০-০৫-২৪ ০৮:১৩:০৮

এই সেই খায়রুল যিনি তত্ত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করে দেশকে ভোটারহীন করেছেন। নিজের বিবেকের কাছে প্রশ্ন রাখেন? কি সর্বনাশ করেছন।

Jahidul Haque

২০২০-০৫-২৪ ২০:১০:১২

This is THAT Khayrul Alam.

এটিএম তোহা

২০২০-০৫-২৪ ০৭:০৫:৫২

তত্বাবধায়ক সরকার ব্যবস্থা বাতিল করে তিনি দৃঢ়তার পরিচয় দিয়েছে। তবে দেশে এ নিয়ে যে অরাজকতা সৃষ্টি হয়েছিল, ভোটার বিহীন ভোটের যে সূচনা তার জন্য একক কৃতিত্ব তার। আন্তর্জাতিক ক্রিমিনাল কোর্ট তার মত যোগ্য বিচারককে মূল্যয়ন না করলে চরম ভুল করবে।

Mohammed Islam

২০২০-০৫-২৪ ০৬:২৮:০৮

We never learn anything even from COVID-19. Shame Bangladesh.

Saif

২০২০-০৫-২৪ ০৬:২১:৩৬

Where is my comments dear editor

Saif

২০২০-০৫-২৪ ০৬:১৯:৫৭

He is enough competent to hold such position. He is a man of principle. If he wins will be good for country name and fame.

Mobasshir Ahmad

২০২০-০৫-২৪ ১৮:২০:২৬

ada kun khairul alam?

Mohammed Akter Hossa

২০২০-০৫-২৪ ০৫:১৮:০৫

করুনার আগাতে আমরা বাংলাদেশীরা যতটুক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছি lতার চাইতে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে এই কুলাঙ্গার খায়রুল হকের এক কলমের খোঁচায় l আল্লাহ তুমি তার বিচার করো l

Siddiqui apu Kader

২০২০-০৫-২৪ ১৮:১৬:৪৪

তাহলে আইসিসির অবস্হা হবে বাংলাদেশ সুপ্রিমকার্ট

Md. Abdus Salam

২০২০-০৫-২৪ ১৮:১৪:১৫

According to Rome Rules , Clause 63 (3) is Conflict (Doesn,t match) with former Justice Khairul Haque.

Mohammad lutfur Rahm

২০২০-০৫-২৪ ০৫:০৬:১৪

সরকার নিজেরা যেমন বিতর্কিত, তেমনি মনোনয়ন ও দিলেন বিতর্কিত ব্যাক্তি।এই সংবিধির ৬৩ (৩) অনুচ্ছেদ বলেছে, বিচারকের নিয়োগ হতে হবে এমন সব ব্যক্তির মধ্য থেকে যাদের রয়েছে উচ্চ নৈতিক চরিত্র, নিরপেক্ষ, সৎ । এই দালালের উচ্চ নৈতিক চরিত্র, নিরপেক্ষতা ও সততার ফল হিসেবে বাংলার জনগণ উপভোগ করছে বিনাভোটের নির্বাচন।

Abdul Hai

২০২০-০৫-২৪ ১৮:০১:০৪

দলীয় সরকারের প্রতি তার মত এত নির্লজজ দ:ালালি এ র আগে কোন প্রধান বিচারপতি এ দেশে করে নি -! " অবসরের পর কোন বিচারপতির লাভজনক পদে যাওয়া উচিত নয় " এটা বলেছেন খায়রুল হক বিচারপতি থাকা কালীন ! - নিজের উপদেশ নিজেই ভেংগে তিনি লাভ জনক পদে গিয়েছেন - খায়রুল হক বলেন - তও্বাবধায়ক সংবিধানের সাথে সাংঘর্ষিক তাই বাতিল করলেন তিনি ! আবার তিনিই বলছেন আরো দুটি ইলেকশন তও্বাবধায়কের অধীনে হতে পারে - তিনিই আবার অবসরের গিয়ে আরও দুটি ইলেকশন তও্বাবধায়কের অধীনে হতে পারে এটি পরিবর্তন করছেন - ! ! বিচারপতি মাহমুদুল আমিন চৌধুরী বলেন : অবসরে গিয়ে শপথ কালীন রায় পালটান ফৌজদ:ারি অপরাধ ! ফৌজদ:ারি অপরাধে খায়রুল হকের বিচার হয় না ? খায়রুল হক বলেছেন " গনপ্রজাতন্ত্রী হলে তও্বাবধায়ক থাকে কি ভাবে ?" গনপ্রজাতনএী হলে গণভোট কি ভাবে বাতিল হয় ? সেটা কেন বাতিল করলেন ?

নাসরিন

২০২০-০৫-২৪ ০৪:২৯:৪৮

যে লোক নিজের দেশের গনতন্ত্র ধ্বংস করে তার ভিতর উচ্চ নৈতিক চরিত্র, নিরপেক্ষ, সৎ এবং দৃঢ়চিত্ত।আছে বলে আমি মনে করি না। ওনির নাম ইতিহাসের পাতায় স্বার্থপর হিসেবে লেখা থাকবে।

জাফর আহমেদ

২০২০-০৫-২৪ ০৪:১৪:৪৮

ইনি কি সেই খায়রুল আলম, তাহলে তো উনার চরিত্রের কোনো তুলনা নেই,

Mohiuddin Palash

২০২০-০৫-২৪ ১৭:১০:৪২

আল্লাহ হেদায়েত দান করুন।আল্লাহুম্মা আমিন। ঋণ থেকে এখওন মুক্তি হয়নি

আপনার মতামত দিন

অনলাইন অন্যান্য খবর



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত