আইসিসি ট্রফি জয়ের পেছনের গল্প

‘গ্রিনিজের অনুশীলন ক্যাম্প ছিল জেলখানার মতো’

স্পোর্টস রিপোর্টার

খেলা ২০ মে ২০২০, বুধবার | সর্বশেষ আপডেট: ১২:২৭

তামিম ইকবালের সঙ্গে মঙ্গলবারের রাতের লাইভ আড্ডায় ফেলে আসা অতীতে ফিওে গিয়েছিলে জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক তিন অধিনায়ক আকরাম খান, মিনহাজুল আবেদীন নান্নু ও খালেদ মাসুদ পাইলট। ১৯৯৭ সালের আইসিসি ট্রফির আগে এবং পরে- বাংলাদেশ ক্রিকেটের পালাবদলের বইয়ের বড় একটা অধ্যায় বদলে গেছে। সে টুর্নামেন্টের ফাইনাল নিশ্চিত করে প্রথমবার বিশ্বকাপ খেলার সুযোগ পেয়েছিল বাংলাদেশ। এর বড় অবদান ছিল তখনকার কোচ গর্ডন গ্রিনিজের। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই কিংবদন্তী ক্রিকেটার ১৯৯৬ সালে বাংলাদেশ জাতীয় দলের কোচ হিসেবে নিযুক্ত হন। আকরাম খান, মিনহাজুল আবেদিন নান্নু, খালেদ মাসুদ পাইলটদের তিনি এতই কঠোর জীবনধারায় ব্যস্ত রাখতেন যে, পাইলটের কাছে তা জেলখানার মত মনে হত!

খালেদ মাসুদ পাইলটের ভাষায়, ‘বিকেএসপিতে যেন কারাগারে ছিলাম আমরা। ভোরে উঠেই ফিটনেস ট্রেনিং করাতো গর্ডন গ্রিনিজ। এরপর বিরতি দিয়ে আবার ব্যাটিং-বোলিং।
আরেকটা বিরতি দিয়ে আবার ফিল্ডিং। দিনের পুরোটা আলো ব্যবহার করতো। বৃহস্পতিবার রাতে ফিরতে পারতাম ঢাকায়, এরপর আবার শুক্রবার সেই কারাগারে। ৯৭-এ যে ক্যাম্প ছিল, আকরাম ভাই, নান্নু ভাই, বুলবুল ভাই, মনি ভাইয়ের একটা রুম ছিল। আমি একটু দুষ্টু প্রকৃতির ছিলাম। আমাকে তারা খুবই আদর করত। ওই রুমে খুব আড্ডা দিতাম। তাদের কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। যেটা আমার জীবনে কাজে লেগেছে।’

আপনার মতামত দিন

খেলা অন্যান্য খবর

রাতে বায়ার্ন-ডর্টমুন্ড দ্বৈরথ

বাভারিয়ানরা আজ পাচ্ছে না আলকানতারাকে

২৬ মে ২০২০



খেলা সর্বাধিক পঠিত