ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সাবেক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার,ব্রাহ্মণবাড়িয়া/সরাইল প্রতিনিধি

অনলাইন ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০, শুক্রবার, ১১:২৬ | সর্বশেষ আপডেট: ৭:৪৫

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে সাবেক এক ইউপি সদস্যকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। তার এক হাত ও পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলা হয়। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৭ টার দিকে হামলার পর জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে মারা যান তিনি। নিহতের নাম আবু বক্কর সিদ্দিক রকেট। তিনি সরাইল সদর ইউনিয়নের ১নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য ছিলেন। এঘটনায় পুলিশ নান্নু মিয়া নামে একজনকে আটক করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছে- পূর্ব বিরোধে সরাইলের প্রাত: বাজার এলাকায় তার ওপর হামলা করে প্রতিপক্ষের লোকজন। রকেট বাজার থেকে বেপারী পাড়ায় বাড়িতে ফেরার পথে ১৫/২০ জনের সন্ত্রাসী দল সিএনজি অটোরিকশা ও মোটরসাইকেলে করে এসে তার ওপর হামলা চালায়।
হামলাকারীরা প্রথমে ককটেল বিস্ফোরন করে ত্রাস সৃষ্টি করে । এসময় লোকজন আতঙ্কে ছুটে পালালে সন্ত্রাসীরা তাকে কোপাতে শুরু করে। ঘটনাস্থলেই তার এক হাত-পা কুপিয়ে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে সন্ত্রাসীরা শরীর থেকে। সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করার পর স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসার পথে মারা যায় সে। হাসপাতালে নিয়ে আসার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন তাকে। রকেট বেপারী পাড়ার চমক বেপারীর ছেলে। সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাদৎ হোসেন টিটু জানান- একই ওয়ার্ডের বর্তমান ইউপি সদস্য শাহআলমের সঙ্গে রকেটের বিরোধ চলছিলো। গত ঈদের সময় শাহআলমের দুই ভাইকে রকেটের লোকজন পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এনিয়ে আদালতে মামলা হয়। এই বিরোধকে কেন্দ্র করেই পরিকল্পিতভাবে প্রতিপক্ষের লোকজন তারওপর হামলা করে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন রয়েছে বলে জানান তিনি।

আপনার মতামত দিন



অনলাইন অন্যান্য খবর

নওগাঁয় ট্রাকচাপায় নিহত ৩

২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০



অনলাইন সর্বাধিক পঠিত