বিএসএমএমইউ

দুই শতাধিক চিকিৎসক পদোন্নতি বঞ্চিত

স্টাফ রিপোর্টার

এক্সক্লুসিভ ৯ ডিসেম্বর ২০১৯, সোমবার | সর্বশেষ আপডেট: ১:৫৮

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত দুই শতাধিক মেডিকেল অফিসার দীর্ঘদিন পদোন্নতি বঞ্চিত বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এসব চিকিৎসকরা গত ১২ বছরের বেশি সময়ে নিয়মিত পদোন্নয়ন পাননি।  বিশ্ববিদ্যালয়ে নিয়োগ পাওয়া বহু চিকিৎসক ইতিমধ্যে মেডিকেল অফিসার থেকে পদোন্নতি পেয়ে বর্তমানে অধ্যাপক কিংবা বিভাগীয় চেয়ারম্যান হয়ে চাকরি করছেন। অথচ উচ্চতর ডিগ্রি থাকা সত্ত্বেও তাদের ভাগ্যে পদোন্নতি জুটেনি। পদোন্নতি বঞ্চিতরা জানান, ২০০৯ সালের ৭ই অক্টোবর এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে ২০০৯ সালের ১৪ই সেপ্টেম্বর তারিখে অনষ্ঠিত সিন্ডিকেটের ৩৩তম সভায় উচ্চতর ডিগ্রিধারী মেডিকেল অফিসারগণের স্ববেতনে সহকারী অধ্যাপক পদে পদোন্নতির সিদ্ধান্ত রহিত করা হয়। পূর্বের আইন পরিবর্তনের কারণে বর্তমানে প্রায় দুই শতাধিক বিশেষজ্ঞ মেডিকেল অফিসার দীর্ঘদিন ধরে পদোন্নতিবঞ্চিত হচ্ছেন। পদোন্নতিবঞ্চিত কয়েকজন মেডিকেল অফিসার জানান, এসব বিশেষজ্ঞ  মেডিকেল অফিসার তাদের পোস্ট গ্র্যাজুয়েশন ডিগ্রি সম্পন্ন করে দেশে-বিদেশে গবেষণা ও চিকিৎসা গ্রহণ করে বিশ্ববিদ্যালয়ে সমুন্নত রেখেছেন। এসব চিকিৎসক বিশ্ববিদ্যালয় বর্তমানে দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার শিক্ষা চিকিৎসা গবেষণা ক্ষেত্রে উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তারা জানান, মেডিকেল সেক্টরে চিকিৎসকদের পদোন্নতি একটি নিয়মিত প্রক্রিয়ার ফলে চিকিৎসকরা তার শিক্ষাগত যোগ্যতা অভিজ্ঞতা ও কর্মদক্ষতা ছাত্র-ছাত্রীদের কল্যাণে কাজে লাগান।
বিশ্ববিদ্যালয়ের অতীতের একটি নীতিমালাকে প্রয়োগ করে বহু চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার থেকে পদোন্নতি পেয়ে বর্তমানে অধ্যাপক কিংবা বিভাগীয় চেয়ারম্যান হয়ে বৃহত্তর সেবা প্রদানের সুযোগ  পেয়েছেন। তারা আরো বলেন, রহিত করা পদোন্নতি আইনটি পুনরায় চালু না করলে বিপুলসংখ্যক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মেডিকেল অফিসার হিসেবে অবসর গ্রহণ করবেন। পদোন্নতিবঞ্চিত হওয়ার ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্ররা তাদের যথাযথ শিক্ষা ব্যবস্থা থেকে যেমন বঞ্চিত হচ্ছেন তেমনি রোগীরাও তাদের বিশেষায়িত চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। তারা অভিযোগ করে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বৈষম্যমূলক আচরণের ফলে বিশ্ববিদ্যালয়ের মূলনীতি শিক্ষা চিকিৎসা গবেষণা কার্যক্রম এবং সেন্টার অব এক্সিলেন্স স্বপ্ন পিছিয়ে যাচ্ছে। গত ২রা ডিসেম্বর পদোন্নতি বঞ্চিত দুই শতাধিক উচ্চতর ডিগ্রিধারী মেডিকেল অফিসার/গবেষণা সহকারীরা বিএসএমএমইউ’র ভিসি বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করলেও প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কোনো সাড়া পাওয়া যায়নি। যদিও ৫ই ডিসেম্বর আন্দোলনকারীদের দুই সদস্যের প্রতিনিধির সঙ্গে কথা বলেন ভিসি। পরবর্তী সিন্ডিকেট সভায় তাদের বিষয়টি উত্থাপন করা হবে বলে আশ্বাস দেন তিনি।

আপনার মতামত দিন

এক্সক্লুসিভ অন্যান্য খবর

সেই প্রেমের কলেজের অপেক্ষা

২০ জানুয়ারি ২০২০





এক্সক্লুসিভ সর্বাধিক পঠিত