বইয়ে তথ্য: মেলানিয়ার নগ্ন ছবি প্রকাশ করেছিলেন রজার স্টোন!

মানবজমিন ডেস্ক

বিশ্বজমিন ৩ ডিসেম্বর ২০১৯, মঙ্গলবার

যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্পের সন্দেহ তার অতীতের মডেলিং ক্যারিয়ারের সময়কার নগ্ন ছবি প্রকাশ করার নেপথ্যে রয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্পের দীর্ঘদিনের মিত্র ও উপদেষ্টা রজার স্টোন। নতুন লেখা একটি বইয়ে এমন দাবি করা হয়েছে। বইটির নাম ‘ফ্রি, মেলানিয়া: দ্য আনঅথরাইজড বায়োগ্রাফি’। বইটি প্রকাশ পাওয়ার কথা রয়েছে ৩রা ডিসেম্বর মঙ্গলবার। সিএনএনের প্রতিনিধি কেট বেনেট লিখেছেন এই বই। এতে বলা হয়েছে, মেলানিয়া ট্রাম্প এখনও স্বীকার করেন না যে, তার ওই ছবি প্রকাশ করার পিছনে কোনো ভূমিকা ছিল তার স্বামী ট্রাম্পের। একই বইয়ে কেট বেনেট যুক্ত করেছেন আরো তথ্য। তাতে বলা হয়েছে, হোয়াইট হাউজে আলাদা বেডরুমে ঘুমান প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্টলেডি।
তবে হোয়াইট হাউজ থেকে এসব তথ্যকে মিথ্যা বলে দাবি করা হয়েছে। বইটির একটি কপি হাতে পেয়েছে লন্ডনের প্রভাবশালী অনলাইন দ্য গার্ডিয়ান। এতে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে এসব কথা বলা হয়েছে। গার্ডিয়ানের কাছে এক বিবৃতিতে কেট বেনেটের দাবির বিষয় প্রত্যাখ্যান করেছেন রজার স্টোন।

উল্লেখ্য, ১৯৯৬ সালের এক ফটোশুটের সময় মেলানিয়া ট্রাম্পের তোলা কিছু নগ্ন ছবি পরের বছর প্রকাশিত হয়েছিল ফরাসি একটি ম্যাগাজিনে। ২০১৬ সালের নভেম্বরে যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাত্র তিন মাস আগে ৩০ শে জুলাই সেই ছবিগুলো আবার প্রকাশ করে নিউ ইয়র্ক পোস্ট। ওই সময়ে ডনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণায় আনুষ্ঠানিক কোনো ভূমিকা ছিল না রজার স্টোনের। কারণ, তিনি ২০১৫ সালের আগস্টেই এ ভূমিকা থেকে সরে গেছেন। তা সত্ত্বেও ট্রাম্পের খুব ঘনিষ্ঠ ছিলেন তিনি।

ওদিকে খারাপ একটি সময় আসে রজার স্টোনের সামনে। ২০১৬ সালের নির্বাচনে রাশিয়ার হস্তক্ষেপ ইস্যুতে তদন্ত শুরু করেন স্পেশাল কনসুলার মুয়েলার। তার সেই তদন্তে বাধা সৃষ্টির জন্য মধ্য নভেম্বরে দোষী সাব্যস্ত করা হয় রজার স্টোনকে। এখন তিনি এ অপরাধে শাস্তি পাওয়ার জন্য অপেক্ষায় আছেন। অন্যদিকে আগামী বছর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। এরই মধ্যে পররাষ্ট্রনীতিতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিশংসন প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে তিনি নির্বাচনের প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তার বিরুদ্ধে নারীদের সঙ্গে নানা রকম সম্পর্ক থাকার অভিযোগ আছে। বলা হয়, মেলানিয়ার সঙ্গে তিনি যখন বৈবাহিক সম্পর্কে জড়িত তখনও তিনি একজন প্লেবয় মডেলের সঙ্গে রাত্রিযাপন করেছেন। তবে এসব অভিযোগ প্রত্যাখ্যান করেছেন ট্রাম্প।

এবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে কেট বেনেট তার বইয়ে মেলানিয়া সম্পর্কে এবং তাদের দাম্পত্য সম্পর্ক নিয়ে অনেক কথা লিখেছেন। তিনি মেলানিয়ার ওইসব ছবি প্রকাশ সম্পর্কে লিখেছেন। বলেছেন, মেলানিয়া ট্রাম্পের সন্দেহ তার ওইসব নগ্ন ছবি প্রকাশ করেছেন রজার স্টোন। এর জবাবে গার্ডিয়ানের কাছে একটি ইমেইল পাঠানো হয়েছে। তা পাঠিয়েছেন হোয়াইট হাউজের প্রেস সেক্রেটারি স্টেফানি গ্রিশাম। তিনি বলেছেন, কেট বেনেটের এই রিপোর্টিং নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন মিসেস ট্রাম্প। কেটের সঙ্গে আমার অফিস শুভ বিশ্বাস নিয়ে কাজ করেছে। আমরা মনে করি, তিনি সততার সঙ্গে তার কাজ করবেন। কিন্তু দুঃখজনক হলো, তিনি এতে অনেক মিথ্যা তথ্য ও মতামত যোগ করেছেন। এতে দেখা যাচ্ছে, ফার্স্টলেডিকে ভালমতো চেনেন না এমন অনেক মানুষের সঙ্গে কথা বলেছেন কেট বেনেট। এটা হতাশাজনক।

আপনার মতামত দিন

বিশ্বজমিন অন্যান্য খবর

গার্ডিয়ানের সম্পাদকীয়

আজীবন ক্ষমতার পথে পুতিন

১৭ জানুয়ারি ২০২০

আপত্তিকর স্লোগান এবং...

১৭ জানুয়ারি ২০২০

নির্ভয়াকাণ্ড

১লা ফেব্রুয়ারি ফাঁসি হবে ৪ ধর্ষকের (ভিডিও)

১৭ জানুয়ারি ২০২০

ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র হামলা

ইরাকে মার্কিন ১১ সেনা সদস্য আহত

১৭ জানুয়ারি ২০২০

জীবন নিয়েও দুর্নীতি!

১৭ জানুয়ারি ২০২০

কি বার্তা দেবেন আজ খামেনি!

১৭ জানুয়ারি ২০২০





বিশ্বজমিন সর্বাধিক পঠিত