হাটহাজারীতে আমন ধানের সোনালী শীষে শস্যভাণ্ডার

মো. আবু শাহেদ, হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) থেকে

বাংলারজমিন ৯ নভেম্বর ২০১৯, শনিবার

 স্বপ্নে বিভোর কৃষকের শস্যভাণ্ডার হিসেবে পরিচিত চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার বিভিন্ন মাঠে এখন আমন ধানের সোনালী শীষ দোলা দিচ্ছে। পোকামাকড় ও বিভিন্ন ধরনের রোগবালাইয়ের আক্রমণ ছাড়াই বেড়ে ওঠা সোনালী ধানের শীষে ভরে গেছে মাঠ। দিগন্ত জোড়া সোনালী ফসলের মাঠ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যকে আরো বিকশিত করে তুলেছে। মাঠ ভরা সোনালী ফসল দেখে কৃষকের চোখে মুখে ফুটে উঠেছে আনন্দের ছোঁয়া। তাদের স্বপ্ন এখন আমন ধানের সোনালী শীষে। এরমধ্যে যদি কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না ঘটে তাহলে এবার আমনের বাম্পার ফলনের আশা করছেন কৃষকরা। উপজেলার ১৪টি ইউনিয়ন ও ১টি পৌরসভা মধ্যে ধান উৎপাদনের দিক থেকে এবারও সবকটি ইউনিয়ন চট্টগ্রামের মধ্যে শীর্ষ স্থানে রয়েছে। তবে কোনো প্রাকৃতিক দুর্যোগ না এলে উৎপাদন বেশি হবে বলে জানান তারা।
প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে গত বোর আবাদ ঠিকমতো ঘরে তুলতে পারেনি এ এলাকার কৃষকরা। তাই বেশিরভাগ কৃষক ঋণের বোঝা মাথায় নিয়ে আমন ধান চাষাবাদ করেছে। যার কারণে তাদের সকল স্বপ্ন এখন আমন ধানের ক্ষেতে। তাই মাঠের সোনালী ফলন দেখে হতাশ কৃষককুল অনেকটা আশান্বিত। বিভিন্ন এলাকায় ধানের গাছে কিছু রোগ দেখা দিলেও সেটি প্রায় বন্ধ হয়ে গেছে। তারপরও সতকর্তার সাথে জমিতে কীটনাশক ওষুধ প্রয়োগ করছেন কৃষকরা। সরেজমিনে দেখা গেছে, ধলই গ্রাম এলাকার বারিয়া বিল মাঠ, মিজাপুর ইউনিয়নের চারিয়াবিলের গ্রামের মাঠ আমন ধানের সোনালী শীষে ভরে গেছে। সতকর্তার জন্য ধানক্ষেতে ওষুধ প্রয়োগে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কৃষকরা। তাই আশা করি বিগত মৌসুমের মতো এবারও আমন ধানের বাম্পার ফলন হবে। এতে কৃষকরা অনেকটা লাভবান হবেন।

 




আপনার মতামত দিন

বাংলারজমিন -এর সর্বাধিক পঠিত