ফেসবুক স্ট্যাটাস

খুনিরা বুয়েটে কলঙ্কের ইতিহাস রচনা করেছে

পীর হাবিবুর রহমান

ফেসবুক ডায়েরি ১০ অক্টোবর ২০১৯, বৃহস্পতিবার

বর্বরতার চরমে পৌঁছে গেছি আমরা। আমাদের সন্তানদের আমরা মানুষ হতে দিচ্ছিনা। খুনি দানব তৈরি করছি। কি অপরাধ বুয়েটের আবরারের? দেশ সেরা মেধাবি ছাত্রদের একজন সে। তার বাবা মা তিল তিল স্বপ্ন দেখেছিলেন। ছেলেটি ভালো লেখাপড়া করে, ভালো রেজাল্ট করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ, ঢাবিসহ আরো ১০জায়গায় চান্স পেলেও বুয়েটে তুমুল প্রতিযোগিতার বাজারে ভর্তি হয়েছিল। বাবা মার বুকভরা স্বপ্নের সাথে তার নিজের স্বপ্ন ছিল। স্বপ্ন পূরন হবার আগেই সব শেষ!

ছাত্রলীগের নেতৃত্বে থাকা আবরারেরই সতীর্থরা নির্মমভাবে পিঠিয়ে, নির্দয় উন্মত্ত খুনির চেহারায় তাকে হত্যা করেছে।
ছাত্রলীগ খুনিদের বহিস্কার করেছে। এদের সবাইকে গ্রেফতার করে সর্বোচ্চ শাস্তি চাই!

ফেসবুক স্টেটাস কেনো হবে আবরার হত্যার কারন? ফেসবুকে ভারত বিরোধী স্ট্যাটাস দিলে তার জবাব, স্ট্যাটাসেই দিতে হবে। জীবন কেড়ে নেয়া প্রতিবাদ নয়,বিশ্বাসঘাতকতা। সে রাষ্ট্রদ্রোহী কোন অপরাধ করেনি। করলেও আইন আছে, কেউ আইন হাতে তুলে নিতে পারেনা।

এখন আবরারের খুনিরা গ্রেফতার হবে। আইন তাদের শাস্তি দেবে। খুনিদের বাবা মা এবং তাদের স্বপ্নও শেষ। জীবনের করুণ পরিণতি ঘটবে। মাঝখানে জীবনহানি,খুনি, বাবা মার ও দেশের স্বপ্নভঙ্গ!

যে ছেলেটি খুন হয়েছে সে হতে পারতো আপনার আমার ছেলে। যারা খুনি তারা হতে পারতো আমার আপনার সন্তান। তার মানে আমরা এমন এক সমাজ তৈরি করেছি,যেখানে আমাদের সন্তানরা খুন হচ্ছে,আমাদের সন্তানরাই খুনি হচ্ছে।
আহারে, বুয়েটে এখন মেধাবি ছাত্রছাত্রীই নয়, খুনিরাও পড়াশোনা করে,বাস করে।

গোটা সমাজ রাজনীতি,প্রশাসনকে কি এ প্রানহানি ঘুম ভাঙাতে পারবে? আজ আমি খুনিদের বিচার চাই,আজ আমরা সুসন্তান তৈরির সমাজ পরিবেশ চাই। বিশ্ববিদ্যালয় ও হল প্রশাসনকেও জবাবদিহি করতে হবে আজ। ভিসি কেনো নেই জানা যায়?

বর্ববররা একজন আবরারকে নৃশংসভাবে সাপের মতন পিঠিয়ে গোটা শরীরে কালসিটে দাগ ফেলেই হত্যা করেনি, একটি স্বপ্নকেই খুন করেনি, মায়ের প্রতিটি আবেগ অনুভূতি ও সব স্বপ্নকে খুন করে বাবার বুকে বোবা কান্নার পাথর দিয়ে কাঁধে তুলে দিয়েছে পৃথিবীর সবচেয়ে ভারি লাশ।
খুনিরা নিজেদের স্বপ্নকেই খুন করেনি, বাবা মার স্বপ্নকে খুন করে বুয়েটে রচনা করেছে কলঙ্কের ইতিহাস।এ সমাজ আজ কোন আদর্শ আইডল দিতে পারছেনা। এ সমাজ পরিবার ভালোছাত্র,ফলাফল ও বুয়েট মেডিকেল, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়, দলবাজি বুঝে, মূল্যবোধ নীতিবোধ এক কথায় আদর্শবান ভালো মানুষ হবার পথ দেখাতে জানে না।

এক অনিশ্চিত অন্ধকার পথ নব প্রজন্মের সামনে,যারা জানেনা এ দেশে কত লাখো দেশপ্রেমিকের রক্তে,কত সংগ্রাম যুদ্ধে,আদর্শিক রাজনীতির মাহাকাব্যযুগের মহানায়কদের রক্তে লেখা গৌরবের ইতিহাস।



পাঠকের মতামত

**মন্তব্য সমূহ পাঠকের একান্ত ব্যক্তিগত। এর জন্য সম্পাদক দায়ী নন।

Md. Harun al Rashid

২০১৯-১০-১৯ ২৩:১৩:০৮

No sir, was it not the false allegation of anti chatra league/shibir or killing a fundamentalist who is against the spirit of liberation war ? It is seen and heard that when a student practices the rites of religion/Islam he is sometimes treated as fundamentalist and very dangerous to country and he should be killed brutally. This was the root cause of Abrar killing, we believe.

আপনার মতামত দিন

ফেসবুক ডায়েরি -এর সর্বাধিক পঠিত