সুখবর

সিলভিয়া যেভাবে ফিরে পেলেন হারানো স্মৃতি

শরীর ও মন

অনলাইন ডেস্ক | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার | সর্বশেষ আপডেট: ৫:১৫
বৃহষ্পতিবারের সকালটা শুরু হোক একটি সুখবর দিয়ে। আর তা হলো ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিনাশ রোগে আক্রান্ত একজন রোগি যেভাবে ফিরে পেলেন তার হারানো স্মৃতি। ঘটনাটি যুক্তরাষ্ট্রের গ্রেটার ম্যানচেস্টারের প্রেস্টউইচ এলাকার। মা সিলভিয়া আর পুত্র মার্ক হর্জারের বাস। দুজনই পারিবারিকভাবে একেবারেই একাকিত্বে ভোগেন। দুটি মৃত্যু তাদের যন্ত্রণা আর দুঃখের কারণ। একটি ১৯৭৭ আর অন্যটি ১৯৮৭- এই দু বছরে সিলভিয়া হারিয়েছেন তার স্বামী সন্তানকে। মার্ক তার পিতা ও ছোট ভাইকে।
সব ছাপিয়ে তাদের এই দুঃখ পরিবারটির বিষাদের বড় কারণ।
ডেইলি মিরর আরও জানায়, এরইমধ্যে তিন বছর আগে ২০১৬ তে সিলভিয়া অকষ্মাৎ আক্রান্ত হন ডিমেনশিয়া বা স্মৃতিভ্রষ্ট রোগে। নর্থ ম্যানচেস্টারে জেনারেল হাসপাতালে তার চিকিৎসা চলে। সেখানে সে ডাক্তার দেখলেই বলে ওঠতো তাকে অপহরণ করা হয়েছে। আর চিৎকার করত। কেবলই বলত, আমাকে একটি হোটেলে আটকে রাখা হয়েছে। তোমরা পুলিশ ডাকো। আমাকে বাঁচাও। সিলিভিয়া আলঝেইমার থেকে আক্রান্ত হন অ্যাপলিপসিতে। নর্থ ম্যানচেস্টার হাসাপাতালেই হয় একটি সার্জারিও। ধীরে ধীরে অবস্থার অবনতি হতে থাকে। ডাক্তার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাপত্র দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেন।


দমে যাওয়ার পাত্র নন মার্ক। কারণ, একমাত্র মা তার ভরসাস্থল। পরিবারে তাদের আর কেউ নেই। খোঁজ নিতে লাগলেন কি করলে এ অবস্থার উন্নতি হতে পারে। কিছু খাবার আছে যা খেলে ব্রেইন সতেজ হয়। স্মৃতি শক্তি পায়। এগুলোর তালিকা করে খাবারের রেসিপি বদলে ফেললেন মার্ক। খাদ্য তালিকায় নানান রকমের মাছের পাশাপাশি প্রচুর পরিমানে আঙুর বিশেষত ব্লু বেরি আর কাঠবাদাম যুক্ত করলেন। মায়ের সঙ্গে ক্রস ওয়ার্ড বা শব্দ নিয়ে খেলা শুরু করলেন। পাশাপাশি এলাকার বিভিন্ন পরিচিত আড্ডায় যোগ দিতে লাগলেন মাকে নিয়ে মার্ক। ধীরে ধীরে পরিবর্তন আসতে থাকে। ২০১৬ থেকে ২০১৯। এ সময়কালে মায়ের পরিবর্তন টের পেতে লাগলেন মার্ক। দেখলেন, মা আবার পুরনো কথা মনে করতে শুরু করেছে। পাগলামি বা স্মৃতি নাশের ফলে যে ধরণের আচরণ করতেন তা একেবারেই বন্ধ হয়ে এসেছে। আশা দেখলেন মার্ক। আর মার্কের ভাষায় তা বদলে তাকে সাহায্য করেছে খাদ্যভ্যাস।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

আপনার মতামত দিন

সন্ত্রাস-সাম্প্রদায়িকতা রুখে দেয়ার শপথ বুয়েটে

সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ করবে ঐক্যফ্রন্ট

সেই বড় ভাই কারা

ফের আলোচনায় আবদুল হাই বাচ্চু

অভিযান অব্যাহত থাকবে

মাটি কেনায় নয়ছয়ের পাঁয়তারা

ইন্টারগেশন সেলে মুুখোমুখি হচ্ছেন সম্রাট-আরমান

সড়কের দুই পাশে ট্রাক বাস রেখে চাঁদাবাজি করা হয় : শামীম ওসমান

কোনো উদ্যোগেই দাম কমছে না পিয়াজের

তদন্ত প্রতিবেদন ২০শে নভেম্বর

বিএনপি সরকারের রেল বন্ধের সিদ্ধান্ত ছিল দেশের জন্য আত্মঘাতী

প্রেমের টানে জৈন্তাপুরে ভারতীয় খাসিয়া নারী হুলুস্থুল

এবার তহবিল চায় রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক

আইনজীবীর হাতে হাতকড়া বিচারক অবরুদ্ধ এজলাস ভাঙচুর

চট্টগ্রামে গতি পেলো মেট্রোরেল

বরগুনায় রিফাত হত্যার প্রধান আসামির জামিন নামঞ্জুর